শেখ মুজিবের জন্য খালেদা জিয়া


যারা মনে করেন খালেদা ‍আর হাসিনা একে অন্যের পিছনে লেগে আছে তারা যে ঠিক নন সেকথা জানা যায় দৈনিক কালের কণ্ঠে প্রকাশিত এক রিপোর্ট থেকে। রিপোর্টে লেখা হয়েছে: ‘২০০৪ সালে খালেদা জিয়ার সরকার অনুদান বাড়িয়ে ১৯ লাখ টাকা করে।’ উল্লেখ্য যে, ১৯৯৪ সালে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান স্মৃতি জাদুঘরের উদ্বোধন করা হয়। সেসময়েও সরকারে ছিলো খালেদা জিয়া। ওই সময়ে খালেদা জিয়ার সরকার জাদুঘরের রক্ষণাবেক্ষণের জন্য ১৩ লাখ টাকা প্রতিবছর অনুদান করে। পরবর্তীতে আবারও খালেদা জিয়ার সরকার সেই অনুদানের অর্থের পরিমাণ বর্ধিত করে।

মন্তব্য: এই ধরনের পারস্পরিক শ্রদ্ধাবোধ যতো বাড়বে, ততোই মঙ্গল। একজন শেখ মুজিবুর রহমান দেশ স্বাধীনের ঘোষণা দিয়েছেন। অন্যজন জিয়াউর রহমান স্বাধীনতা যুদ্ধের বীর সেনানী জেড ফোর্সের অধিনায়ক, পরবর্তীতে দেশের অন্যতম প্রধান রাজনৈতিক দল বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা। এদেরকে বিতর্কিত না করে বরং তাদের প্রতি সম্মান দেখানোর মধ্যেই জাতির ঐক্যবদ্ধতা ও কল্যাণ নিহিত। অন্তত শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতি যথাযথ সম্মান প্রদর্শন করতে খালেদা জিয়া সেই কাপর্ণ্য করেননি।

Advertisements

4 thoughts on “শেখ মুজিবের জন্য খালেদা জিয়া

  1. রাজনীতিবিদদের এই ব্যাপারটা খুবই অসহ্য লাগে। তারা জাতীয় নেতাদের কি অপমানটাই না করে! তাদের অবদানগুলোও নির্দ্বিধায় অস্বীকার করে। এতে করে তারা নিজেরাই সম্মান হারাচ্ছে।

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s