সেরা সংবাদ ৬-৭-২০১০: ‘শিশু গৃহকর্মীকে ধর্ষণের অভিযোগে স্বামীর বিরুদ্ধে মামলা’


(যে ঘটনা প্রতিদিন ঘটে সেটি শীর্ষ সংবাদ হয় কি করে আমি বুঝি না। আজকে সবগুলো দৈনিকের শীর্ষ সংবাদটি মামুলি একটি সংবাদ। এটি পত্রিকার মধ্যে কোথাও এক কলাম নিউজ হলেই চলতো। সে যাক। আমি আজকের প্রথম আলোর ১৯ নং পৃষ্ঠার সংবাদটিকে আজকের সেরা সংবাদ হিসেবে বাছাই করেছি। কারণ এটি এদেশের ইতিহাসে বিরল। এর সামাজিক গুরুত্ব রয়েছে। এই সংবাদের নায়িকা নাজমা আক্তারকে স্যালুট জানাতে চাই।)

সংবাদের সারসংক্ষেপ: নাজমা আক্তার তার স্বামী ৩৮ বছর বয়সী রেজাউল করিমের বিরুদ্ধে মতিঝিল থানায় মামলা করেছেন। কারণ রেজাউল তাদের বাসার ১৩ বছরের গৃহকর্মীকে ধর্ষণ করেছে। নাজমা আক্তার জানিয়েছে, রেজাউল এর আগেও বাসার গৃহকর্মীদের ধর্ষণ করেছে। কিন্তু সম্মানের ভয়ে আগের ঘটনাগুলো তিনি প্রকাশ করেননি।

মন্তব্য: এদেশে বিয়ে নামের পবিত্র বন্ধনটিকে উপেক্ষা করে পরনারীতে গমনের ঘটনা ঘটে চলছে বহুকাল ধরে। নারীরা সেটি মেনেও নেন। গৃহকর্মী নারীর সঙ্গে গৃহকর্তার অবৈধ লীলা এদেশের অনেক নারী মেনে নিতে বাধ্য হন। কেউবা বলেন তাও ভালো টানবাজার কিংবা এখানে সেখানে যাচ্ছে না। পুরুষ বহুগামী হবে এটি যেন একটি স্বীকৃত সত্য। এর প্রতিবাদ করা যাবে না। গৃহকর্মীটিও এটাকেই তার ভাগ্য মনে করে। এরকম একটি অবস্থায় নাজমা আক্তার সাহস করে তার স্বামীর মুখোশ উম্মোচন করে দিয়েছেন। আমি মনে করি আজকের পত্রিকায় এটি শীর্ষ সংবাদ হতে পারতো। যেখানে রেজাউলের ছবি ছাপানো যেতে পারতো। ছাত্রলীগের মারামারির মতো একটি নিত্য ব্যাপার নিয়ে মাতামাতি করার কিছু নেই।

Advertisements

2 thoughts on “সেরা সংবাদ ৬-৭-২০১০: ‘শিশু গৃহকর্মীকে ধর্ষণের অভিযোগে স্বামীর বিরুদ্ধে মামলা’

  1. আমি একটা ব্যাপার কিছুতেই বুঝি না, বাড়ির মালিকের রুচিতে কিভাবে আসে একটা কাজের মেয়ের গায়ে হাত দিতে? ধর্ষনতো অনেক পরের কথা, কাজের মেয়েকে ধরা , উফ, কেমন করে সম্ভব। ব্যাপারটা এমন হয়ে গেল যে গৃহকর্তি ড্রাইভারের সাথে! আমি জানি না কোন শ্রেনীর মানুষ তাদের স্বামী কে এত ছার দেয়, কিন্তু আমি যদি জানতে পারি কাল আমার স্বামী আমাকে ছেরে কাজের মেয়ের প্রতি বেশি আকর্ষবোধ করছে, আমি তার সংসারই করবনা। তাই বলে একটা কাজের মেয়ে?

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s