বয়স্কদের প্রতি ভারতীয়রা বড় বেশি নির্দয়


ভারতের বয়স্ক পিতামাতারা তাদের ছেলে সন্তান ও ছেলের বউদের দ্বারা নির্যাতন ও নিপীড়নের শিকার হন। ৬০ বছরের বেশি বয়সী অন্তত ৩১ শতাংশ বয়স্ক মানুষ নির্যাতিত ও নিপীড়িত হন এবং ২৪ শতাংশ বয়স্ক মানুষ প্রতিদিন নির্যাতিত হন। ভারতের এনজিও হেল্পএইজের গবেষণা থেকে এই তথ্য বের হযে এসেছে।

 

হেল্পএইজ ২০টি শহরে গবেষণা চালিয়েছিল। শহরগুলো হলো দিল্লী, মুম্বাই, কোলকাতা, বাঙ্গালোর, হায়দারাবাদ, গোহাটি, পাটনা, চন্ডিগড়, আহমেদাবাদ, সিমলা, জম্মু, কোচি, ভূপাল, ভুবেনেশ্বর, পন্ডিচেরি, চেন্নাই ইত্যাদি। বয়স্ক নির্যাতনের দিক থেকে এক নাম্বারে রয়েছে ভূপাল। এরপর গোহাটি। তালিকার শেষ নামটি হলো জয়পুর। ভূপালে প্রায় ৭৭.১২ শতাংশ বয়স্ক মানুষ নির্যাতিত হন। জয়পুরের ক্ষেত্রে সংখ্যাটি হলো ১.৬৭ শতাংশ।

 

বেশিরভাগ বয়স্ক মানুষ জানেন না নির্যাতনের ক্ষেত্রে পুলিশের সহায়তা নেওয়া যায়। আর যারা জানেন তারা পারিবারিক মর্যাদা রক্ষার্থে বিষয়টি পুলিশকে জানান না। জরিপ থেকে আরো জানা যায়, বয়স্ক নারীরা পুরুষের তুলনায় বেশি নির্যাতিত হন। আবার ৮০ বছরের মানুষ ৬০ বছর বয়স্কদের চেয়ে বেশি নির্যাতিত হয়ে থাকেন।

 

নির্যাতনকারী হিসেবে এক নাম্বারে রয়েছে ছেলে এবং তারপর ছেলের বউ। দিল্লীতে শতভাগ ছেলের বউ নির্যাতনকারী। ভূপালে এই সংখ্যাটি ৮৭ ভাগ।

 

নির্যাতনের ধরনগুলোর মধ্যে রয়েছে মানসিক ও আবেগীয় নির্যাতন (৩৭ ভাগ), অশ্রদ্ধা প্রদর্শন (৩৬ ভাগ) এবং অর্থনৈতিক নির্যাতন (৩৫ ভাগ)। প্রায় ২০ শতাংশ বয়স্ক মানুষ মনে করেন তারা অবহেলিত।

 

সবচেয়ে দুঃখজনক হলো বয়স্ক মানুষের বিরুদ্ধে চুরিসহ বিভিন্ন ধরনের অপরাধের অভিযোগ আনা হয়। মৌখিক গালাগালিকে ৬০ শতাংশ বয়স্ক মানুষ নির্যাতন মনে করলেও ৪৮ শতাংশ শারীরিক আক্রমণকে নির্যাতন মনে করেন। বেশিরভাগ ক্ষেত্রে আর্থিকভাবে নির্ভরশীল বয়স্ক মানুষ নির্যাতনের শিকার হন। জরিপে অংশ নেওয়া ৫৫ ভাগের আয়ের উৎস বিদেশ থেকে সন্তানদের পাঠানো অর্থকড়ি এবং ৩৫ ভাগ নিজের পেনশনের অর্থে চলেন। এখানে আরো উল্লেখ করা প্রয়োজন যে, ৮১ ভাগ বয়স্ক মানুষ তাদের ছেলে সন্তানের আয়ের উপর নির্ভরশীল। ১৪ শতাংশ তাদের মেয়েদেরে আয়ের উপর।

 

Advertisements

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s