যা শুনতে পাই


ছবি কৃতজ্ঞতা: ইন্টারনেট

ছবি কৃতজ্ঞতা: ইন্টারনেট

আমি সাধারণত পাবলিক ট্রান্সপোর্ট বা জনপরিবহনে চলাচল করি। রাস্তার ধারের হোটেলগুলোতে খাই। কাঁচাবাজারে কাঁদাপানি মাড়িয়ে বাজার করি। ফুটপাথের ময়লা আবর্জনাকে পাশ কাটিয়ে রাস্তায় হাটি। পথের ধারের পেয়ারা, আমড়া মাখানো, ঝালমুড়ি, চটপটি খাই। এখানে ওখানে দাঁড়াই। সবজায়গায় মানুষের ভীড় থাকে। আমাদের দেশের মানুষরা কথা বলে। তারা অচেনা মানুষের সঙ্গেও কথা বলে। বাসে যেতে যেতে গল্প করে। খেতে খেতে গল্প করে। ফলে মানুষের ফিসফাস, গুঞ্জন, কথোপকথন সবই শুনতে পাই।

  • চলতি পথে যাদের কথা শুনি তাদের বেশিরভাগ মনে করে যে, তাকে ঠকানো হচ্ছে। তারা আরো মনে করে যে, তারা অন্যকে ঠকায় না। আর যদি ঠকায়ও সেটা তারা বাধ্য হয়ে করে। যা কিছু বাধ্য হয়ে করতে হয় তাতো দোষের কিছু হতে পারে না, তাদের ধারণাটা এমনই।
  • সমাজের মানুষ উপযুক্ত মূল্য দিচ্ছে না- বেশিরভাগের ধারণাটা তাই। তারা আরো মনে করেন যে, তাদের সমাজের জন্য করার কিছু নেই, কারণ সমাজ তাদের উপযুক্ত মূল্য দিচ্ছে না। তারা এও মনে করেন যে, যদিও সমাজ তাদের মূল্য দিচ্ছে না তবুও তারা সমাজের ভালোর জন্য অনেক কিছু করছেন।
  • টাকা পয়সা কামানোর সবচেয়ে সহজ পথটি হলো রাজনীতি করা। কেউ কেউ মনে করেন যে, রাজনীতি না করলে কিংবা কোন ধরনের রাজনৈতিক সংস্পর্শ ছাড়া ধনী হওয়া সম্ভব নয়।
  • অনেকেই মনে করেন মিথ্যা কথা বলাটা হলো রাজনীতি করার প্রথম শর্ত। তারা নিজেদের মিথ্যা কথা বলতে না পারাকে রাজনীতিতে যুক্ত না হওয়ার কারণ হিসেবে দেখে থাকেন।
  • হাঁটার মতো কোন রাস্তাঘাট না থাকা অনেকের ক্ষোভের কারণ। ফুটপাথ ধরে হাটার সময় যেখানে সেখানে প্যান্টের জিপার খুলে কিংবা লুঙ্গি তুলে জল বিয়োগ করার দৃশ্য দেখাটা নিয়ে কেউ কেউ ক্ষোভ প্রকাশ করেন আবার তাদের কাউকে কাউকে দেখা যায় বাস থেকে নেমে একটু দূরে ড্রেনে পাশে দাড়িয়ে বা বসে হিসু করছেন।
  • মানুষ মনে করেন বাংলাদেশের রাজনীতিতে ভালো মানুষ নেই। তারা আরো মনে করেন যে, ভালো মানুষের পক্ষে রাজনীতি করা সম্ভবও নয়।
  • যারা জনসংখ্যাকে দেশের এক নাম্বার সমস্যা মনে করেন তারা এটাও মনে করেন যে, এই সমস্যা সমাধান সম্ভব নয়।
  • প্রায় সকলে মনে করেন রাজনীতিতে আগামীতে তারেক জিয়া এবং জয় ‍দু’জনেই আসবেন।
  • মোটামুটি সবাই বিশ্বাস করেন যে রাজনীতিকদের ব্যক্তি স্বার্থের কারণেই যতো হানাহানি ও মারামারি।

আলোচনাগুলো থেকে দেখা যায় যে, দেশ ও দেশের রাজনীতির ব্যাপারে মানুষের মনে এক ধরনের আস্থাহীনতা তৈরি হয়েছে। যার নেতিবাচক প্রভাব সুদূরপ্রসারী হতে বাধ্য। এই ট্রেন্ড যদি এখনই বন্ধ না করা হয় তাহলে বাংলাদেশ পিছিয়ে পড়তে বাধ্য।

সেসঙ্গে আমাদেরকে একথাও ভাবতে পারতে হবে যে, সমাজে খারাপ মানুষের সংখ্যা সীমিত। আর ভালো মানুষের সংখ্যা সবসময় বেশি। রাজনীতি মানেই খারাপ একথা ভাবা মোটেই সুস্থ চিন্তা হতে পারে না।

আমাদেরকে ইতিবাচক চিন্তা করতে হবে।
 

 

Advertisements

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s