ধর্ষণকারীদের লিঙ্গ কতো লম্বা?


থিওডোর রবার্ট বান্ডি বিশ্বের কুখ্যাত ধর্ষণকারীদের একজন; টেড বান্ডি নামে পরিচিত এই ধর্ষণকারীকে ১৯৮৯ সালে ফাঁসি দেয়া হয়৤ সূত্র:ইন্টারনেট

থিওডোর রবার্ট বান্ডি বিশ্বের কুখ্যাত ধর্ষণকারীদের একজন; টেড বান্ডি নামে পরিচিত এই ধর্ষণকারীকে ১৯৮৯ সালে ফাঁসি দেয়া হয়৤
সূত্র:ইন্টারনেট

ভাববেন না আমার মাথা খারাপ হয়েছে কিংবা বয়সের দোষে পেয়ে বসেছে। আমার বয়স বাংলাদেশের অর্থমন্ত্রী মি. আবুল মাল আবদুল মুহিতের চেয়ে অনেক কম। ফলে উল্টোপাল্টা বকার বয়স এখনো আমার হয়নি। তাছাড়া আমি ক্ষমতাতে নেই যে ক্ষমতা আকড়ে থাকার জন্য মিথ্যা দিয়ে সত্য ঢাকতে হবে। আমি এই দেশের সাধারণ একজন মানুষ। ফলে আমার প্রশ্নটাও সাধারণ- ধর্ষণকারীদের লিঙ্গ কতো লম্বা? পাঠক হিসেবে আপনি হয়তো প্রশ্ন করতে পারেন, ধর্ষণকারীদের শাস্তি না চেয়ে আমি লিঙ্গের লম্বা নিয়ে প্রশ্ন করছি কেন? আপনি আমার পাঠক। পাঠক আমার শক্তি। পাঠককে আমি গুরুত্ব দেই। যেকারণে আপনার প্রশ্নের উত্তর আমি দেব। আমি কেন প্রশ্ন করছি সেই উত্তর দেব। কিন্তু আপনার কি জানা আছে- ধর্ষণকারীদের লিঙ্গ কতো লম্বা?

গতকালও ধর্ষিত হয়েছে এক গার্মেণ্টস কর্মী। ঘটনা ঘটেছে চলন্ত বাসে। পত্রিকার পাতায় সেই খবর প্রকাশিত হয়েছে। দুই ধর্ষণকারীকে আটকও করা হয়েছে। পুলিশ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছে। গত কয়েকমাস ধরে প্রতিদিনই পত্রিকার পাতায় ধর্ষণের খবর ছাপা হচ্ছে। ধর্ষকদের নাম ধাম পরিচয় প্রকাশিত হচ্ছে। কিন্তু পুলিশ সব ধর্ষণকারীকে ধরতে পারছে না। যারা ধরা পড়ছে তাদের কি ধরনের বিচার হচ্ছে সেটা আমরা জানতে পারছি না। কখনো কখনো পত্রিকার পাতায় পড়ি যে, ধর্ষকদের গ্রাম্য সালিশে কয়েক হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। বাংলাদেশের আইনে ধর্ষণের শাস্তি কিন্তু কয়েক হাজার টাকা জরিমানা নয়। তাহলে কেন এমনটা হচ্ছে? সেই উত্তর খোঁজার জন্যই আমি জানতে চাচ্ছি যে, ধর্ষণকারীদের লিঙ্গ কতো লম্বা?

আামাদের দেশের পত্রিকাগুলো ৪ পৃষ্ঠা থেকে ১৬ পৃষ্ঠা, কোন কোনটা আবার দুই পৃষ্ঠা কিংবা ২৪ পৃষ্ঠা ছাপা হয়। কখনো কখনো ৩২ পৃষ্ঠা ছাপা হয়। এর মধ্যে বিজ্ঞাপন ছাপানোর পর যতোটুকু জায়গা থাকে সেখানে প্রতিহিংসামূলক রাজনীতির খবরাদি ছাপানোর পর যে জায়গাটুকু থাকে সেখানে সামাজিক বিষয়াদি নিয়ে খবর প্রকাশিত হয়। ফলে দেশে প্রতিদিন যতো ধর্ষণের ঘটনা ঘটে সবটা ছাপা হয় না। প্রশ্ন হতে পারে ধর্ষণের খবর ছাপা হয়ে লাভটা কি?

লাভ লোকসানের কথা বলতে পারব না। তবে ধর্ষণের খবর ছাপা হওয়ার পর সাধারণ মানুষের মনে প্রতিক্রিয়া তৈরি হয়। সেসঙ্গে প্রত্যাশাও বাড়ে। তারা আশা করেন যে, স্বঘোষিত সাহসী স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মি. মহিউদ্দিন খান আলমগীর শুধুমাত্র রাজনৈতিক নেতা পেটানো পুলিশদের পুরস্কৃত করবেন না। দেশের আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী পুলিশ বাহিনীর যে সদস্যরা ধর্ষণকারীদের গ্রেফতার করবে তাদেরকেও পুরস্কৃত করবেন। যাতে করে পুলিশ ধর্ষণকারীদের গ্রেফতারে তৎপর হয়। তবে কেউ যদি প্রশ্ন করেন যে, পুলিশ বাহিনী কেন ধর্ষণকারীদের ধরবে? সেটা যুক্তিসঙ্গত প্রশ্ন হবে। কেন জানেন?

আমরা দেখেছি এই দেশের ধর্ষণকারীরা স্থানীয় পর্যায়ে ক্ষমতাশালী কিংবা ক্ষমতাশালী পরিবারের সদস্য। ধর্ষণকারী যখন কোন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী হয় তখন সে হয় ক্ষমতায় থাকা রাজনৈতিক ছাত্র সংগঠনের নেতা। তারমানে ধর্ষণকারীদের একটি সাধারণ পরিচয় হলো সে নিজেই ক্ষমতাবান কিংবা অন্যের ক্ষমতা দ্বারা ক্ষমতাবান। তারমানে একজন ধর্ষণকারী আপনার আমার মতো সাধারণ মানুষ নয়।

সেকারণে তার লিঙ্গ কতো লম্বা সেই প্রশ্নটা চলে আসে। অন্তত আইনের হাতের চেয়ে যে তার লিঙ্গ লম্বা সেটা নিয়ে তো কারো দ্বিমত থাকার কথা নয়। কি বলেন?

সাধারণ মানুষ মনে করে যে, বউ শাশুড়ির কাছে নিরাপদ। কিন্তু বাস্তবতা হলো বউ শাশুড়ির দ্বারাই বেশি নির্যাতিত হয়। যদিও দু’জনেই নারী। ফলে নারী নেতৃত্বে থাকলেই যে নারীরা নিরাপদ হবেন সেটা অন্তত বাস্তবে ঠিক নয়। নারীদের ছত্রছায়ায় ধর্ষক নামের পুরুষরা নিশ্চিন্তে নারীদের ধর্ষণ করছে। টাঙ্গাইলের ঘটনার কথা মনে করে দেখুন।

ধর্ষণকারীদের লিঙ্গ এতোটাই লম্বা যে, আইনের লম্বা হাতও এখানে খাটো হয়ে যেতে বাধ্য হচ্ছে। সুশীল সমাজের লম্বা লেকচারের চেয়েও ধর্ষণকারীদের লিঙ্গ লম্বা। রাজনৈতিক নেতাদের অহরহ মিথ্যা বলার চেয়েও ধর্ষণকারীদের লিঙ্গ লম্বা। ধর্ষণকারীরা তাদের লিঙ্গের জোরে সদর্পে সমাজে ঘুরে বেড়াচ্ছ আর নতুন নতুন ধর্ষণের ঘটনা ঘটাচ্ছে।

এই অবস্থায় ক্ষমতালোভী নপুংসক রাজনৈতিক নেতাদের ক্ষমতা থেকে বিদায় জানানোর সময় হয়েছে। সত্যিকারের আইনের লম্বা হাত প্রতিষ্ঠিত করার সময় হয়েছে। এমন পরিস্থিতি তৈরি করা দরকার যাতে করে ধর্ষণকারীদের লিঙ্গ যতো লম্বাই হোক না কেন সেটা যেন আইনের লম্বা হাতকে ছাড়িয়ে যেতে না পারে।

Advertisements

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s