ইসরাইল কেন সন্ত্রাসী রাষ্ট্র নয়? আর হামাস কেন সন্ত্রাসী সংগঠন?


বিপ্লব তো রাষ্ট্র ও শাসকদের বিরুদ্ধেই হয়? তাহলে বিপ্লবী মানেই কি সন্ত্রাসী ও জঙ্গি? চে গুয়েভারা, লেনিন, মাও সেতুং এরা সবাই কি সন্ত্রাসী ছিলেন? কিংবা স্পার্টাকাস, জর্জ ওয়াশিংটন, থমাস জেফারসন? কিংবা খোমেনি, সিমন বলিভার, শেখ ‍মুজিবুর রহমান? এরা সবাই কি সন্ত্রাসী ছিলেন?

তাহলে বিপ্লবী কে? স্বাধীনতাকামী কে? আর জঙ্গি কে?

গাজায় যে ইসরাইল বোমা ফেলছে, এটা কি সন্ত্রাস দমন? তাহলে হামাসের ইসরাইলে বোমা ফেলাটা কেন সন্ত্রাস দমন নয়?

International Humanitarian Law বা Law of Armed Conflict লিখে গুগলে সার্চ দিলে দেখবেন যুদ্ধেরও একটা নিয়ম নীতি আছে। ইসরাইল সেই নিয়ম নীতি মানছে না। বোমা মেরে নিরীহ মানুষ ও শিশুদের হত্যা করছে। তাহলে প্রশ্ন হলো- ইসরাইলকে কেন সন্ত্রাসী রাষ্ট্র আখ্যায়িত করা হচ্ছে না? যখন হামাসকে জঙ্গী সংগঠন আখ্যায়িত করা হচ্ছে।

আবারো সেই প্রশ্নগুলোই করি: বিপ্লব তো রাষ্ট্র ও শাসকদের বিরুদ্ধেই হয়? তাহলে বিপ্লবী মানেই কি সন্ত্রাসী ও জঙ্গি? চে গুয়েভারা, লেনিন, মাও সেতুং এরা সবাই কি সন্ত্রাসী ছিলেন? কিংবা স্পার্টাকাস, জর্জ ওয়াশিংটন, থমাস জেফারসন? কিংবা খোমেনি, সিমন বলিভার, শেখ ‍মুজিবুর রহমান? এরা সবাই কি সন্ত্রাসী ছিলেন?

একটি ন্যায়ভিত্তিক বিশ্ব প্রতিষ্ঠায় আসুন আমরা অহিংস আন্দোলনকে আরো জোরদার করি। মানুষকে শান্তিতে থাকতে দেই। যেমনটা আমরা নিজেদের জন্য কামনা করি।

একটা বড় লেখা কেউ লিখবেন কি?

Advertisements

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s